নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

বুধবার,

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

সিদ্ধিরগঞ্জে হেফাজতের তান্ডব

দোষ স্বীকার করে আদালতে মুফতি আজহারুলের জবানবন্দি

প্রকাশিত:২১:১৪, ১৮ আগস্ট ২০২১

দোষ স্বীকার করে আদালতে মুফতি আজহারুলের জবানবন্দি

সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালে নাশকতার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন সংগঠনটির সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মুফতি আজহারুল ইসলাম।

 

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) বিকালে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আলমের আদালতে তিনি এই জবানবন্দি দেন।  


বুধবার (১৮ আগস্ট) বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম। মুফতি আজহারুল ইসলামের বাড়ি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার হাটখোলা গ্রামে। তার বাবার নাম মৃত আব্দুল মালেক মাস্টার।


এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, গত ২৮ মার্চ সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের করা ২৮ আসামিসহ অজ্ঞাত চার-পাঁচশ’ বিএনপি, জামায়াত-শিবির, হেফাজতকর্মী এবং আরও অনেকে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে যানবাহনে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর করে এবং পুলিশের ওপর হামলা চালায়।

 

সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ডের চৌরঙ্গী পেট্রোল পাম্প থেকে মৌচাক পর্যন্ত  ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে হরতাল ও অবরোধের নামে তারা এসব কর্মকাণ্ড চালায়। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা  দায়ের করা হয়।


পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল পিবিআইয়ের কাছে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেয়। তদন্তভার পেয়েই তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় মহাসড়কে তাণ্ডব চালানোর হোতা মুফতি আজহারুল ইসলামকে (৩৫) পিবিআই গত ১৬ আগস্ট জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে আনে।


মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) তাকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আলমের আদালতে হাজির করলে তিনি দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি প্রদান করেন। 


এই মামলায় এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমির মুফতি বশির উল্লাহসহ আরও দুই জন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেছেন।