নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

মঙ্গলবার,

২৮ মে ২০২৪

অনেকেই সংগঠনকে দুর্বল করতে চায় : আনোয়ার

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:২০:৩৮, ১৭ মার্চ ২০২৪

অনেকেই সংগঠনকে দুর্বল করতে চায় : আনোয়ার

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, ২০০১ সালের পরে আমাদের দুঃসময় চলছিল। আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল। আজ অনেকে অনেক কথা বলেন। আমরা তখন না থাকলে আওয়ামী লীগকে খুঁজে পাওয়া যেত না।

আমাদের সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশে কেউ নামেনি। আমরা বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদে মিছিল করেছিলাম। 

এক-এগারোর সময়েও দলকে শক্তিশালী করতে কাজ করেছি। আজকে যদি আরেকটা ১৫ আগষ্ট আসে আমরা যেন ঘরে বসে না থাকি। আন্তর্জাতিক চক্রান্ত চলছে।

আমরা যেন ঘরে বসে না থাকি। সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। অনেকেই সংগঠনের ভেতরে থেকে সংগঠনকে দুর্বল করতে চায়।

রোববার (১৭ মার্চ) শহরের ২ নং রেলগেট এলাকায় জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে একথা বলেন তিনি। এর আগে দলের নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

আনোয়ার হোসেন আরো বলেন, সবাই সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক হতে পারে না। জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মহানগর আওয়ামী লীগকে সাজাতে বলেছেন। সকলকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমি মহানগর আওয়ামী লীগকে এগিয়ে নিতে চাই।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেছেন, আমাদের আত্মত্যাগকে আপনারা ব্যার্থ করে দিবেন না। আমরা সবাইকে কমিটিতে নিতে পারিনি। যাদের কমিটিতে নিতে পারিনি তাদের অন্য জায়গায় আমরা রাখবো।

দুয়েকজন প্রতিবাদ করেন, আমি ও আনোয়ার ভাই কিছু বলি না। কারণ তারা আমাদের সন্তান, তারা ভুল করতে পারে। আমরা তো ভুল করতে পারি না।

তিনি বলেন, আপনারা যারা রাগ করেছেন দুঃখ পেয়েছেন আসুন। আমরা দুঃখ মিটিয়ে দেব। আপনাদের অবশ্যই সেট করবো। গত বিশ বছর এখানে কোন কমিটি হয়নি। আনোয়ার ভাই বা আমি আমাদের কোন লোককে সেট করিনি।

আপনাদের মেন্ডেট নিয়ে আমরা কমিটি ঘোষণা করেছি। দায়িত্ব আপনাদের। যেখানে অপপ্রচার হবে সেটার সমুচিত জবাব দেবেন। যারা করছে তারা আমাদের ছোট ভাই। তাদের ওপর রুষ্ঠ হবেন না।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জি এম আরমানের সঞ্চালয়নায় উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম আহসান হাবিব, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিদ্যুৎ কুমার সাহা, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাবিব উল নূর পলু, আইন বিষয়ক সম্পাদক ওয়াজেদ আলী খোকন, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক আইয়ূব আলী, জনসংখ্যা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. আতিকুজ¥ামান হোসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদা মালা, ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের প্রস্তাবিত সভাপতি কামাল আহম্মেদ, ১৪নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান, ১৫নং ওয়ার্ড সভাপতি আব্দর করিম, ১৬নং ওয়ার্ড সভাপতি এপন, ১৭নং ওয়ার্ড সভাপতি আনিস মাহমুদ, ১৮নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক কবির হোসাইন সহ ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দরা।