নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

শনিবার,

২৬ নভেম্বর ২০২২

সিদ্ধিরগঞ্জে ৩ জনকে কুপিয়ে জখম, থানায় মামলা

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:১৮:১৫, ৫ অক্টোবর ২০২২

সিদ্ধিরগঞ্জে ৩ জনকে কুপিয়ে জখম, থানায় মামলা

সিদ্ধিরগঞ্জে একটি নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে রড চুরির ঘটনায় অভিযুক্তদের বিষয়টি শালিশের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করার জেরে তিনজনকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে।

 

এ ঘটনায় আহত মো. আলী হোসেন বাদী হয়ে বুধবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হলেন নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আটিগ্রাম এলাকার মো. চোরা কাসেমের ছেলে মোঃ মিলন (৩২), ওয়াপদা কলোনী এলাকার মোঃ পিয়াস (১৯), আটিগ্রাম এলাকার মিজানের ছেলে মো. নূর আলম (২০), একই এলাকার মোঃ মানিক (২৩), মো. রাহাত (২২), মোঃ করিম (৩০),  রসূলবাগ এলাকার শাহ আলমের ছেলে আল আমিন (১৯), আটিগ্রাম এলাকার ফালানের ছেলে হানজালা (১৯), একই এলাকার ডাইলের ছেলে মজিবর (২০), আয়নালের ছেলে জনি (৩৫), মিজানের ছেলে নুর আলম (২০), মজিবর রহমানের ছেলে মো. উজ্জল (৩২) ও পাইনাদী এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে মারুফ (৩০)। এরআগে মঙ্গলবার রাতে নাসিক ৪ নং ওয়ার্ডের আটিগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 


মামলায় মো. আলী হোসেন উল্লেখ করেন, তার বড় ভাই শাহজাহান সিদ্ধিরগঞ্জের আটিগ্রাম এলাকায় একটি নতুন বহুতল ভবন তৈরী করছে। তার ভাইয়ের আনুমানিক ৩ টন রড ১ নং বিবাদীর সহায়তায় অন্যান্য বিবাদীগণ চুরি করে নিয়ে যায়। 


এ ঘটনায় স্থানীয় বিচার শালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি এবং মিলনসহ আরো কয়েকজনকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করে। এই আক্রোশে  মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে তার ছোট ভাই মো. কবির হোসেনকে উক্ত বিবাদীগণ সহ অজ্ঞাত আরো ৮/১০ জন  রামদা, চাপাতি, লোহার রড, হকিষ্টিক লাঠি ও এসএস পাইপসহ  এলোপাথারী মারধর করে জখম করে। 


ওই সময় কবিরের ডাক চিৎকারে তার বড় ভাই মো. শাহজাহান এগিয়ে আসলে মজিবুর ও জনি রামদা দিয়ে শাহজাহানের ডান হাতে আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। তখন তার ভাইদের বাঁচানোর জন্য মো. জিয়াইর রহমান এগিয়ে এলে মিলন ও পিয়াস ধারালো রামদা দিয়ে জিয়াউরের মাথায় আঘাত করলে সে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। 


তার ভাই, জিয়াউর ও অন্যান্যদের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সকল বিবাদীগণ তার ভাইয়ের হোটেলের চেয়ার টেবিল ও অন্যান্য মালামাল সহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি দোকান ভাংচুর করে।


আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নেওয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।    


মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান পিপিএম বার জানান, এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
 

সম্পর্কিত বিষয়: