নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

বুধবার,

২৯ মে ২০২৪

সোনারগাঁয়ে ১৫ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:২১:২৯, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

সোনারগাঁয়ে ১৫ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু

বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন এ মেলার আয়োজনে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে শুরু হয়েছে ১৫ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা। আবহমান বাংলার লোক সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে হবে বলে জানিয়েছেন ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষ।

রবিবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে পক্ষ কালব্যাপী এই মেলার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজহার খান। 

ফাউন্ডশনের পরিচালক ড. আমিনুর রহমান সুলতানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব খলিল আহমদ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামসুল ইসলাম ভুঁইয়া ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ।

মেলায় ঐতিহ্যবাহী কারুশিল্পের বৈচিত্র্যময় কারুপণ্যের সমাহার রাখা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তের কারুশিল্পীদের এখানে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। কারুশিল্পীরা তাদের কারুপণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির সুযোগ পেয়েছেন এ মেলায়। 

এ ছাড়া সোনার তরী লোকজ মঞ্চে ‘পহেলা বৈশাখ সকলের উৎসব’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভাইস চ্যান্সলর অধ্যাপক ড. মুহম্মদ সামাদ।

এদিন সকালে ফাউন্ডেশন চত্বরে মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে পহেলা বৈশাখের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। পরে গ্রামবাংলা ও বৈশাখী উৎসব শীর্ষক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বাউল গান ও লোকজ খেলার মাঠে হা-ডু-ডু খেলা প্রদর্শন করা হয়।

এ ছাড়া মেলায় লোক ও কারুশিল্প চর্চা চত্বর উদ্বোধন করা হয়। এ চর্চা কেন্দ্রে দক্ষ কারুশিল্পীরা স্কুল কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের কারুশিল্প প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। কারুশিল্প চর্চা চত্বরের উন্মুখে ঐতিহ্যবাহী পালকি প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাতে তরুণ-তরুণীরা পালকি সম্পর্কে ধারনা লাভ করতে পারে।

১৫ দিনব্যাপী এ বৈশাখী মেলায় দেশের হারিয়ে যাওয়া লোকজ খেলাধুলা, লোকজীবন প্রদর্শনী ও পালকির গান, কিচ্ছা গান, ভাটিয়ালি গান, জারি, সারি গান, লালন ও হাসান রাজার গান পরিবেশিত হবে। মেলার বিশেষ আকর্ষণ ছিল হালখাতার আয়োজন।

এ হালখাতায় ফাউন্ডেশনের কারুপল্লীর শিল্পীরা তাদের বকেয়া স্টল ভাড়া পরিশোধ করেন। পরে সবাইকে মিষ্টি মুখ করানো হয়।

এদিকে সকালে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলার ভট্টপুর বটমুলে লোকজ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এর আগে এক বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। 

এ ছাড়া ঐতিহ্যবাহী বৌ মেলা, মঙ্গলের গাছকলার মেলা, চিনতলার মেলাসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজ নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উৎসব পালন করে।
 

সম্পর্কিত বিষয়: