নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

২৬ মে ২০২৪

নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণে খরচ বাড়লো ২৮০ কোটি টাকা

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:১৯:২১, ২১ এপ্রিল ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণে খরচ বাড়লো ২৮০ কোটি টাকা

নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা রুটের মিটারগেজ রেললাইনের সমান একটি ডুয়েল গেজ লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। এ প্রকেল্পর ব্যয় দ্বিগুণ বেড়েছে। পাশাপাশি পঞ্চম দফায় বাড়ানো হয়েছে প্রকল্পের মেয়াদকালও।

 

মূল প্রকল্পের অনুমোদিত ব্যয় ছিল ৩৭৮ কোটি ৬৫ লাখ ৫৭ হাজার টাকা। দ্বিগুণ বাড়ায় প্রকল্পের ব্যয় দাঁড়ালো ৬৫৮ কোটি ৩৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা। এ প্রকল্পে অনুদান হিসেবে পাওয়া যাবে ২৪৯ কোটি ৫৪ লাখ ৫১ হাজার টাকা।

 

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অনুমোদিত মূল প্রকল্প অনুযায়ী- এটি বাস্তবায়নের মেয়াদকাল ছিল ২০১৪-২০১৭ সাল। একই ব্যয় রেখে প্রথম দফায় মেয়াদ বাড়িয়ে জুন ২০১৯ করা হয়। ব্যয় না বাড়িয়ে দ্বিতীয় দফায় মেয়াদ বাড়ানো হয়। এতে মেয়াদকাল ছিল ২০১৪ থেকে জুন ২০২০। এরপর তৃতীয় দফায় জুন ২০২১ এবং চতুর্থ দফায় ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়। সর্বশেষ জুন ২০২৬ সাল পর্যন্ত এ প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

 

প্রকল্পের উদ্দেশ্য
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ সেকশনে বিদ্যমান মিটারগেজ লাইনের সমান্তরাল ডুয়েল গেজ লাইন নির্মাণ করা হবে। মূলত গেন্ডারিয়া থেকে নারায়ণগঞ্জ পর্যন্ত বিদ্যমান মিটারগেজ লাইনকে ডুয়েলগেজ লাইনে রূপান্তর করাই এ প্রকল্পের মূল কাজ, যার মেইন লাইন ১২ দশমিক শূন্য ১ কিলোমিটার এবং লুপ লাইন ৫ দশমিক ১০ কিলোমিটার।

যাত্রী ও পণ্যবাহী ট্রেনের গতি ও নিরাপত্তা বাড়ানোর মাধ্যমে ভ্রমণের সময় কমানো, নতুন ট্রেন পরিচালনার মাধ্যমে বেশি যাত্রী ও পণ্য পরিবহন, ঢাকা শহরের যানজট কমানো এবং রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন সাধন করা।

মূল কাজ

আউটসোর্সিং জনবলের বেতন-ভাতা, পরামর্শক সেবা, চলমান ও আসন্ন চুক্তিমূল্যের ওপর বিধি-বিধান দ্বারা আরোপিত ভ্যাট, ট্যাক্সের পুনর্ভরণ বাবদ ব্যয়। রেলের সিগন্যালিং সংশ্লিষ্ট পূর্তকাজ, সেতু নির্মাণ ও সিডি ভ্যাট পরিশোধ।

 

যে কারণে বার বার প্রকল্প সংশোধন
ভূমি সংক্রান্ত, বিদ্যমান মিটারগেজ লাইনটিকে ডুয়েলগেজ লাইনে রূপান্তর, বাস্তবতার নিরিখে স্টেশন ভবনের ফ্লোর এরিয়া বৃদ্ধি, পরামর্শক সেবা বৃদ্ধি ও সংযোজন।

 

পরিকল্পনা সচিব সত্যজিত কর্মকার বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ সেকশনে বিদ্যমান মিটারগেজ লাইনটিকে ডুয়েল গেজে রূপান্তর হবে। সমান্তরাল একটি নতুন ডুয়েল গেজ লাইন নির্মাণের ফলে দ্রুতগতির যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী ট্রেন পরিচালনা, নতুন ট্রেন পরিচালনা সম্ভব হবে। এর মাধ্যমে ঢাকার সঙ্গে নারায়ণগঞ্জের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে। রাজধানী ঢাকার যানজট প্রশমনেও এ প্রকল্প সহায়ক হবে।

সম্পর্কিত বিষয়: