নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

শনিবার,

১৯ জুন ২০২১

  সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাতে বাড়ছে অপরাধ

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:২১:০৩, ৫ জুন ২০২১

  সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাতে বাড়ছে অপরাধ

সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ৫নং ওয়ার্ড এলাকায় দিন-দিন বাড়ছে কিশোর গ্যাংয়ের অপরাধ। আর এই কিশোর অপরাধীদের পৃথক পৃথক ভাবে নিয়ন্ত্রন করছে এক শ্রেণীর নামধারী বড় ভাই। বড় ভাই ও গুটি কয়েক লোক স্বার্থ হাসিলের জন্য সমাজের বিভিন্ন অপকর্ম করার জন্য এই কিশোরদের ব্যবহার করে আসছে। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কিশোরদের এক গ্রুপ অন্য গ্রুপের উপর হামলা করছে। ধাওয়া, পাল্টা-ধাওয়ার বাইরেও ঘটছে নানা অপরাধের ঘটনা। অল্প বয়সী এই কিশোরদের হাতে লাগছে রক্তের দাগ। অশান্ত হয়ে উঠছে এলাকার পরিবেশ। তাদের থাবা থেকে বাদ পড়ছে না জন্মদাতা বাবা-মা এমনকি শিক্ষকও। এতে বিরূপ প্রভাব পড়ছে পরিবার ও সমাজে। 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মশিউর রহমান (পিপিএম-বার) জানান, কিশোর অপরাধ বন্ধে কঠোরতর ব্যবস্থা গ্রহন করছে প্রশাসন। র‌্যাব বলছে কিশোর গ্যাং’ নিয়ন্ত্রণের জন্য র‌্যাবের পক্ষ থেকে কিছু বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এই প্রক্রিয়ায় প্রয়াজনে পরিবারের অভিভাবকদেরও নিয়ে আসা হবে। দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে প্রয়োজনে আরও বিস্তর উদ্যোগ নেওয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে। কিন্তু আইনশৃংখলা বাহিনীর কঠোর মনোভাব থাকলেও কার্যত কিশোর গ্যাংদের নিয়ন্ত্রনে কার্যকরী পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না।

জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ৫নং ওয়ার্ড পশ্চিম কলাবাগ মাদ্রাসা রোড এলাকায় মৃত মনিরের ছেলে তুশি ও খুশি, মাইনুদ্দিনের ছেলে যুবরাজ, হারানো পুকুরপাড় মসজিদ এলাকার সফুরের ছেলে ফয়েজ, জব্বরের ছেলে নিলয়, আইয়ুব নগর পাথইরা পাড়া এলাকার মৃত মজিবরের ছেলে সাগর উরফে ইজ্জত আলী, রাজিব, পূর্ব কলাবাগ মুন্সিপাড়া এলাকার হান্নান ড্রাইভারের ছেলে আল আমিন পাহার হাউজ এলাকার জাহাঙ্গিরের ছেলে কাউসার ওরফে রিফাত, পশ্চিম কলাবাগ মাদ্রাসা রোড এলাকার ইংলিশ মুজিবরের ছেলে সজিব বাবু, সাইলো গেইট এলাকার নাজমুল ওরফে নাব্বুর ছেলে তারেক, তাইজ উদ্দিনের নাতি আরাফাত , মাজার রোড এলাকার সালাউদ্দিন রবিন হুডের ছেলে রাসেলসহ একটি সিন্ডিকেট রয়েছে যারা প্রতিনিয়তই এলাকায় হুন্ডা মহড়া, ইভটিজিংসহ নানামূখী অপরাধ করে বেড়াচ্ছেন।সমাজ ও মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, দুই-একটা অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটলে কিশোর গ্যাংয়ের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা। কয়েক দিন পরই বিষয়টি ভুলে যাচ্ছেন। দীর্ঘমেয়াদি সমাধান নিয়ে কেউ ভাবছেন না।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই কিশোররা আগামীর ভবিষ্যৎ। এই প্রজন্মকে রক্ষা করতে না পারলে ভয়াবহ সংকটে পড়বে দেশ। এলাকাবাসীরা বলছেন, করোনাকালে বেড়েছে কিশোরদের মধ্যেও অপরাধ প্রবণতাসহ ‘গ্যাং কালচার’ আসক্তি। লকডাউনে অবরুদ্ধ পরিস্থিতিতে শিশু-কিশোরদের অপরাধের ধরনও অনেকটা বদলেছে। অপরাধের সঙ্গে নতুন মাত্রা দিয়েছে প্রযুক্তি। অলস সময়ে কিশোরদের যৌনতার প্রতি আগ্রহ বেড়েছে। এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় রক্তাক্ত জখম হওয়াসহ একাধিক ঘটনা ঘটেছে। এ অবস্থা থেকে রেহাই পাওয়া জন্য জেলা পুলিশ সুপার ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন :সিদ্ধিরগঞ্জে ৫০০ পিস ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার
 

সম্পর্কিত বিষয়: