নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

০৩ জুলাই ২০২২

উৎসবের মতো সারাদেশের মানুষ আ’লীগের জন্মদিন পালন করছে : দিপু

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:১৮:২৮, ২৩ জুন ২০২২

উৎসবের মতো সারাদেশের মানুষ আ’লীগের জন্মদিন পালন করছে : দিপু

ঈদ ও পহেলা বৈশাখের মতো সারাদেশের মানুষ ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির জাতীয় পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু।

 

তিনি বলেছেন, ‘আজকে সারাদেশের মানুষ বৈশাখের উৎসব, ঈদের উৎসবের মতো বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জন্মদিন পালন করছে। কারণ আওয়ামী লীগ মানে বঙ্গবন্ধু আর বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগের এই সুদীর্ঘ সংগ্রামী পথচলায় সকলকে অভিভনন্দন জানাই।’

 

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বেলা সাড়ে ১১টায় আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় তিনি এইসব কথা বলেন।

 

তিনি আরও বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার পরাজিত শক্তিরা ষড়যন্ত্র করে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে। ’৭৫ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের দাবিতে লড়াই সংগ্রাম করেছে। ’৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের সরকার গঠন করা হয়। ’৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ছিল বাংলাদেশের উন্নয়নের সময়। ২০০১ সালে আবার জামাত-শিবির চক্র কারচুপির মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে পরাজিত করে। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে দুর্নীতি, অপসংস্কৃতি, জঙ্গিবাদ রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় চলতে থাকে। জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বোমা হামলা করা হয়। সেদিন প্রাণের নেত্রী বেঁচে গেলেও আইভী রহমানসহ অনেকেই প্রাণ হারিয়েছিলেন।’

 

আনিসুর রহমান দিপু বলেন , ‘বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। সারা পৃথিবীর মানুষ অবাক তাকিয়ে রয়। জ্বলে পুড়ে ছাড়খার, তবুও বাংলাদেশ মাথা নোয়াবার নয়। অনেক ষড়যন্ত্র, অপশক্তির অপকৌশলের পরও ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তাই বলছি, বাংলাদেশে যা কিছু ভালো, যা কিছু শুভকর, সুন্দর ও উন্নয়নমুখী তার সবকিছুই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে হয়েছে। বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। বিশ্ব বলছে, উন্নয়ন করতে চাইলে বাংলাদেশের দিকে তাকাও। সেই বাংলাদেশ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের এই শিখরে পৌছেছে।’

 

এই সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খবিরউদ্দিন আহমেদ, আব্দুল কাদির, অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. নিজাম আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. শহীদুল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মরিয়ম কল্পনা, উপদপ্তর সম্পাদক হাবিবুর রহমান, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ছগির আহমেদ, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া সাজনু প্রমুখ।

সম্পর্কিত বিষয়: