নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

সোমবার,

৩০ জানুয়ারি ২০২৩

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের ছড়াছড়িতেও ক্রেতা কম

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:১৮:৩৪, ১০ জানুয়ারি ২০২৩

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের ছড়াছড়িতেও ক্রেতা কম

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৭তম আসরে ক্রেতা আকর্ষণের জন্য নানা পন্থা অবলম্বন করছেন দেশি-বিদেশি বিভিন্ন স্টল-প্যাভিলিয়ন মালিকেরা। কেউ দিচ্ছে নগদ ছাড়, কেউ বিশেষ অফার, আবার কেউ এক পণ্যের সঙ্গে আরেক পণ্য উপহার দিচ্ছে। ফলে এসব ছাড়ে ক্রেতারাও ঝুঁকছেন তাদের স্টল-প্যাভিলিয়নে। তবে আশানুরুপ বেচাবিক্রি নেই।


বাণিজ্য মেলার ১০ম দিনে ভিড় কিছুটা কম হলেও বিক্রেতারা থেমে নেই ক্রেতা আকর্ষণের চেষ্টা করতে। এক কোম্পানি আরেক কোম্পানি থেকে প্রতিযোগিতা করে ছাড় দিচ্ছে। ক্রেতা আকর্ষণে কেউ দিচ্ছে ১০ শতাংশ, কেউ ১৫ শতাংশ, কেউ আবার ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়া দিচ্ছে। আবার কেউ উপহারসামগ্রী দিচ্ছে। ফলে বেচাকেনা কিছুটা হচ্ছে বলে জানা গেছে।


ইলেকট্রনিক পণ্যের মধ্যে এবার বাণিজ্য মেলায় টেলিভিশন ও রেফ্রিজারেটরের চাহিদা বেশি। এ ছাড়া ওয়াশিং মেশিন, এয়ারকন্ডিশনার, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, ব্লেন্ডার, টোস্টারসহ বিভিন্ন হোম অ্যাপ্লায়েন্সেও ক্রেতাদের আগ্রহ লক্ষ করা গেছে। বাণিজ্য মেলায় মোবাইল ফোনসহ এবারের মেলায় চার শতাধিক মডেলের পণ্য এনেছে ওয়ালটন।

 

এসব পণ্যে নগদ ছাড়সহ বিনামূল্যে হোম ডেলিভারি দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। মেলায় ওয়ালটনের ২২টি মডেলের স্মার্টফোন, ১৬টি মডেলের ফিচার ফোন ও ওয়ালপ্যাড রয়েছে। এবারের মেলার আকর্যণ ওয়ালটন প্রিমো জেডএক্স ৪ নিয়ে এসেছে। যার মূল্য ২৬ হাজার ৯৯৯ টাকা।  


ওয়ালটন সূত্র জানায়, শুধু তরুণরাই নয়, সব শ্রেণির ক্রেতার চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে রয়েছে ২ হাজার ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ৩৫ হাজার ৯৯০ টাকা মূল্যের স্মার্টফোন। এছাড়া নগদ ছাড়ে পাঁচটি মডেলের ট্যাব পাওয়া যাচ্ছে। মেলা উপলক্ষে হ্যান্ডসেট ভেদে ২ থেকে সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ পর্যন্ত নগদ ছাড় দিচ্ছে ওয়ালটন। এ ছাড়া মেলা উপলক্ষে টিভি, ফ্রিজ, জেনারেটর ও এসিতে নগদ ছাড়সহ রয়েছে বিনামূল্যে হোম ডেলিভারি। 


মেলায় গৃহস্থালি পণ্য নিয়ে আরএফএল প্লাস্টিক ও ইতালিয়ানোর তিনতলা প্যাভিলিয়ন রয়েছে প্রাণ আরএফএল গ্র“পের। এদের সব ধরনের পণ্যের ওপর থাকছে ১০ শতাংশ ছাড়। প্লাস্টিক ফার্ণিচার পণ্য ৫ হাজার টাকার কিনলেই আরএফএল দিচ্ছে ফ্রি হোম ডেলিভারী।

 

ফ্রাইপ্যান, কড়াই, ক্যাসেরোল, দোসা তাওয়া ও সাধারণ তাওয়াগুলোর দামেও দেয়া হচ্ছে ছাড়। লাঞ্চ বক্স, টিফিন ক্যারিয়ার, বাটি, বোল, মিল্ক পট, স্পাইরাল প্লেট, হাড়ি পাতিল, কড়াই, চামচ রয়েছে এখানে।


দিল্লি অ্যালুমিনিয়ামের সবচেয়ে আকর্ষণীয় পণ্য হলো অ্যালুমিনিয়ামের কারুকাজ করা ট্রে, মগ, গ্লাস, বাটি, বড় থালা ও টিফিন বক্স। যা আমদানি করা হয়েছে থাইল্যান্ড থেকে। ১২০ থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকায় পাবেন ট্রেগুলো। সোনালি রঙের কারুকাজ করা টিফিন ক্যারিয়ারও পাবেন ১ হাজার ২৫০ থেকে ১ হাজার ৪৫০ টাকায়। 


ক্রোকারিজের বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে এসেছে কিয়াম। কিয়ামে নন-স্টিক সাত সেট পাচ্ছেন ৩ হাজার টাকায়। যাতে রয়েছে ফ্রাইপ্যান ও সসপ্যান, কড়াই, মিল্কপ্যান ও তিনটি ঢাকনা। সেটটি কিনলে পাবেন উপহার। রয়েছে ১০ পিসের স্টক পট সেট। নয় পিস ডিসকো হাঁড়ি সেট। এ ছাড়া বিভিন্ন ক্রোকারিজের কোম্পানি একটি কিনলে ১০টি উপহার সামগ্রী দিচ্ছে। বাণিজ্যমেলা উপলক্ষে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের অফিস ও বাসাবাড়ির জন্য বিভিন্ন রকম আসবাবে দিচ্ছে বিশেষ ছাড়।  


বাণিজ্য মেলায় নাদিয়া, হাতিল, আক্তার, পার্টেক্স ও নাভানা নিয়ে এসেছে আকর্ষণীয় ডিজাইন ও নতুন মডেলের বিভিন্ন আসবাবপত্র। ডিজাইন অনুযায়ী ১০ শতাংশ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে এসব কোম্পানি।


এছাড়া বাণিজ্য মেলায় ভোগ্যপণ্যের জিনিসেও রয়েছে ছাড়। আবুল খায়ের গ্রুপের ডেইরি ও ফুড প্রোডাক্টের স্টল বসেছে মার্কস ডেইরি নামে। যা মেট্রোরেলের আদলে করা হয়েছে প্যাভিলিয়ন। সেলসম্যান তৃষ্ণা জানান, এবার প্যাভিলিয়ন আর্কষণীয় করা ও ব্যয়ের তুলনায় বেচাবিক্রি কম হচ্ছে।

 

মেলার প্রথম ১০ দিনে কারো টার্গেট পূরণ হয়নি। ডেইরি ও ফুড প্রোডাক্টের বিশেষ ছাড় দেয়া হচ্ছে মার্কস ফুডে।  ৪০০ গ্রাম দুধ কিনলেই মগ, প্লেট, গ্লাস ফ্রি দেয়া হচ্ছে। রয়েছে লটারীর ব্যবস্থা।


মেলায় নানা ধরনের আইসক্রিম নিয়ে এসেছে আবদুল মোনেম লিমিটেডের প্রতিষ্ঠান ঈগলু। ক্রেতাদের জন্য ঈগলুর অফার একটু ভিন্ন প্রকৃতির, আর সেটা হচ্ছে র‌্যাফেল ড্র।


প্রতিদিন আছে হ্যাপি আওয়ারের ড্র, সপ্তাহে এক দিন রয়েছে মেগা ড্র। প্রতিদিন দুবার বিকেল ৪টা থেকে ৬টা ও ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত থাকছে হ্যাপি আওয়ারের র‌্যাফেল ড্র। এতে পুরস্কারের মধ্যে রয়েছে সেলফি স্টিক, হেডফোন ও স্পিকার। আর মেগা ড্রতে পুরস্কার থাকছে।


বাণিজ্য মেলায় ঘুরতে আসা রূপগঞ্জের বাগবেড় এলাকার রুহুল আমিন ও সুমী দম্পতি। তারা জানান, বাণিজ্য মেলায় সকল পণ্যেই ছাড় দেয়া হচ্ছে। কেনাকাটা করবো ২০ জানুয়ারির পরে। তবে মেলার খাবার হোটেলগুলোতে অতিরিক্ত দাম রাখা হচ্ছে। খাবারের মান নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তারা।
 

সম্পর্কিত বিষয়: