নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

মঙ্গলবার,

২৮ মে ২০২৪

উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ বা সমর্থন করলে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে : সাখাওয়াত

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:২২:২০, ৫ মার্চ ২০২৪

উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ বা সমর্থন করলে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে : সাখাওয়াত

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেছেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমান আমাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন মহানগর বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের কারা নির্যাতিত সকল নেতাকর্মীদেরকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য।

তেমনি ভাবে তিনি সারা বাংলাদেশেই নেতাকর্মীদেরকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য তিনি নির্দেশ দিয়েছেন। আজকে আপনাদেরকে সংবর্ধনা জানানোর জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এখানে ছুটে এসেছেন। 

সরকার বিরোধী আন্দোলন সংগ্রাম পালন করতে গিয়ে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপুসহ হামলা- মামলা, গ্ৰেপ্তার ও কারা নির্যাতিত মহানগর বিএনপির অঙ্গসংগঠনের দেড় শতাধিক নেতাকর্মীদেরকে সংবর্ধনা দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা গুলো বলেন। 

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা নির্বাচন প্রসঙ্গে সাখাওয়াত বলেন, গত মার্চের ২ তারিখে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আমাদের একটি সভা হয়েছে।

সেখানে উপজেলার নির্বাচনে যাওয়ার বিষয়ে আমাদের সাথে মতামত হয়েছে। সকলের মতামতের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাচনেও বিএনপি না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সবাই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যারা এই নির্বাচন অংশগ্রহণ করবে এবং যারা সমর্থন করবেন তাদেরকেও দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।আমাদেরকে এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আজকের অনুষ্ঠান থেকে আমি সকল নেতাকর্মীদেরকে বলে দিতে চাই যেহেতু আমরা জাতীয় নির্বাচন অংশগ্রহণ করিনি সুতরাং উপজেলা নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নে আসে না।   

তিনি বলেন, আজকে যে সকল নেতাকর্মীদেরকে সংবর্ধনা দেওয়া হচ্ছে তারা হচ্ছে বীর। তাদেরকে আমি বীর হিসেবেই সম্বোধন করছি। তারা দলের জন্য এবং এই দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা ও একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আন্দোলন করেছে।

তার জন্যই তারা দীর্ঘদিন হামলা মামলা ও নির্যাতনসহ গ্রেপ্তার হয়ে বহু নির্যাতন সহ্য করেছে। এবং জেলখানার অমানুষিক নির্যাতনের পরে আজকে তারা কারামুক্ত হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে এসেছে। আমি মানুষ মহানগর বিএনপির পক্ষ থেকে ও বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমানের পক্ষ থেকে আমি আপনাদেরকে বীর হিসাবে সম্বোধন করছি। 

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জে অনেক মামলা হয়েছে অনেকে গ্রেফতার হয়েছেন অনেকে আবার গ্রেপ্তার হননি। অনেকেই এখনো যাবেন নিতে পারেননি আমার কাছে সকল ডকুমেন্ট আছে। আমি মনে করি আমরা সবাই বীর। 

নারায়ণগঞ্জ  মহানগর বিএনপি যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, শ্রমিকদল, মহিলাদলসহ সকল অঙ্গ সংগঠন আমরা একটি গাছ। আমরা সবাই এই গাছের শাখা প্রশাখা। আমাদের নেতা তারেক রহমান। যে যাই বলুক আমরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমানের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছি।আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। এদেশের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাব ইনশাল্লাহ।  

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু'র সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির  (ঢাকা বিভাগ) সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আবদুস সালাম আজাদ, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির  (ঢাকা বিভাগ) সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক বেনজীর আহমেদ টিটু। 
এসময়ে আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এড. সরকার হুমায়ূন কবির, মনির হোসেন খান, সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক হাজী নুরু উদ্দিন, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এড. রফিক আহমেদ, ডা. মজিবুর রহমান, মাসুদ রানা, এড. এইচএম আনোয়ার প্রধান, বরকত উল্লাহ, রাশিদা জামাল, হাবিবুর রহমান মিঠু, বন্দর উপজেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক হারুন উর রশীদ লিটন,বন্দর থানা বিএনপি'র সভাপতি শাহেনশাহ আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক রানা,  মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব মমিনুর রহমান বাবু, মহানগর শ্রমিকদলের সদস্য সচিব ফারুক হোসেন, বিএনপি নেতা শেখ সেলিম আহমেদ, আলমগীর হোসেন চঞ্চল, আবুল হোসেন রিপন, মহি উদ্দিন শিশির, নাজমুল হক, নজরুল ইসলাম সরদার, জাবেদ হোসেন, আনোয়ার হোসেন, সাইফুল ইসলাম বাবু, শিপলু, মোহসীন মিয়া, পলাশ প্রধান, হযরত আলী, মো. মাসুদ, শাহ্ জালাল, আরিফ, লুৎফর রহমান মন্টু, শওকত আলী লিটন, সাইফুল ইসলাম বাবু, ইকবাল হোসেন, মুছাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি তারা মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শাহিন আহমেদ,ধামগড় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাহিদ খন্দকার, মদনপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মামুন ভূঁইয়া, গোগনগর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন মিয়াজী, বন্দর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রাজু আহম্মেদ, মহানগর যুবদল নেতা  সম্রাট হাসান সুজন, মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহাজাদা আলম রতন, সাধারণ সম্পাদক রাহিদ ইসতিয়াক শিকদারসহ মহানগর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।