নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

মঙ্গলবার,

২৮ মে ২০২৪

বকেয়া বেতনের দাবিতে ক্রোনী অ্যাপারেলসের শ্রমিকদের ফের বিক্ষোভ

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:২০:৫৫, ২ মার্চ ২০২৪

বকেয়া বেতনের দাবিতে ক্রোনী অ্যাপারেলসের শ্রমিকদের ফের বিক্ষোভ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ক্রোনী অ্যাপারেলস নামের একটি কারখানার শ্রমিকেরা চার মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন।

শনিবার (২ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে কারখানার সামনে বিক্ষোভ করেন তাঁরা। 


প্রায় দেড় ঘণ্টা সড়ক অবরোধের কারণে উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সংবাদ পেয়ে শিল্প পুলিশ এসে তাঁদের সরে যেতে অনুরোধ করলে কারখানার গেটের সামনে বিক্ষোভ করতে থাকেন তাঁরা। এ নিয়ে গত তিন মাসের মধ্যে চতুর্থবারের মতো শ্রমিক অসন্তোষের ঘটনা ঘটল ক্রোনী অ্যাপারেলসে। 


কর্মসূচিতে কারখানার প্রায় তিন শতাধিক শ্রমিক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী অংশ নেন। এ ছাড়া সদ্য চাকরিচ্যুত কর্মীরাও সেখানে যোগ দেন। আন্দোলনরত শ্রমিকদের গত নভেম্বর মাস থেকে ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত বেতন বকেয়া রয়েছে। চার মাসের বেতন ভাতার দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তাঁরা। 


ক্রোনী অ্যাপারেলসের সাবেক কর্মচারী আনোয়ার হোসেন বলেন, গত নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বেতন বকেয়া রয়েছে। বেতন না পাওয়ায় ধার দেনা করে চলতে হচ্ছে সবাইকে। এর মধ্যে গত সপ্তাহে আমাকেসহ ৫৮ জনকে ছাঁটাই করেছে কর্তৃপক্ষ। তাদের কেবল এক মাসের বেতন দিয়ে বিদায় দেওয়া হয়েছে। আরও তিন মাসের বেতন বাকি আছে আমাদের।

আজকে (শনিবার) কর্মরত স্টাফরা চার মাসের বেতন দাবিতে রাস্তায় নেমেছে, আমরাও আমাদের তিন মাসের বেতন পরিশোধের দাবিতে যুক্ত হয়েছি। 


কারখানার আরেক কর্মচারী রশিদ হাসান বলেন, গত তিন মাস আমরা মানবেতর জীবন যাপন করছি। আমি ভাড়া বাসায় থাকি, বাড়িওয়ালা প্রতিনিয়ত ভাড়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। মুদি দোকানে কয়েক হাজার টাকা বাকি জমে গেছে। চোরের মতো লুকিয়ে লুকিয়ে চলতে হয় পাওনাদারের ভয়ে। এই অবস্থায় মালিকপক্ষ আমাদের বেতন দিচ্ছে না। তাই বেতনের দাবিতে রাস্তায় নেমেছি আমরা।
বকেয়া বেতনের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে শ্রমিকদের বিক্ষোভবকেয়া বেতনের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে শ্রমিকদের বিক্ষোভ


নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের পরিদর্শক (ইনটেলিজেন্স) সেলিম বাদশা বলেন, স্টাফদের বেতন পরিশোধের দাবিতে তাঁরা সড়ক অবরোধ করেছিলেন। তাঁদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরে যেতে বলা হয়েছে। মালিকপক্ষের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ চলছে। আশা করছি, দ্রুতই এই সমস্যার সমাধান হবে। আপাতত সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক আছে।


এই বিষয়ে ক্রোনী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসলাম সানীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তার সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে গত সপ্তাহে ৫৮ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে ছাঁটাই প্রসঙ্গে বলেছিলেন, কারখানায় স্টাফের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় অ্যাডজাস্টমেন্ট করতে হচ্ছে। বেতন ভাতা আমরা হিসাব করে বুঝিয়ে দিব।
 

সম্পর্কিত বিষয়: