নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

সোমবার,

১৭ জুন ২০২৪

সোনারগাঁয়ে নারী গ্রাম পুলিশকে নির্যাতনের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:১৪:২২, ২০ নভেম্বর ২০২৩

সোনারগাঁয়ে নারী গ্রাম পুলিশকে নির্যাতনের  অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

সোনারগাঁও উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল আমিন সরকারের বিরুদ্ধে তার কাউন্সিলে কর্মরত নারী গ্রাম পুলিশ শাহনাজ বেগম (৪৫)কে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

 

 বুধবার (১৫ নভেম্বর) আনুমানিক সকাল ১১টার দিকে ওই নারী গ্রাম পুলিশকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মারধর করে মারাত্মকভাবে আহত করেন।

 

সরেজমিনে ভুক্তভোগীর বাসায় গিয়ে জানা যায়, ভুক্তভোগী নারী গ্রাম পুলিশ শাহনাজ বেগমকে চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার প্রায়ই অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে থাকেন। কিন্তু ঘটনার দিন তার চরিত্র নিয়ে কথা বলে সে নাকি বিভিন্ন পুরুষের সঙ্গে খারাপ কাজ করে। তার মা বাপ তুলে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে তাকে প্লাস্টিকের পাইপ দিয়ে মারদর করেন বৈদ্যের বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার।

 

এতে নারী গ্রাম পুলিশ শাহনাজ বেগম মারাত্মকভাবে আহত হন।পরে স্থানীয় নবী মেম্বার নারী গ্রাম পুলিশকে উদ্ধার করে ফার্মেসিতে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

 

এ বিষয়ে ভুক্তভোগীর মেয়ে জানান, এই ইউনিয়নের কোন লোক আমার মাকে খারাপ বলতে পারবে না, চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার কি কারনে আমার মায়ের উপরে হাত তুললেন তার যদি তিনি সঠিক প্রমাণ না দিতে পারেন। তাহলে আমি তার মেয়ে হয়ে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল আমিন সরকারের বিচার চাই।

 

এ বিষয়ে বৈদ্যের বাজার ইউপি চেয়ারম্যান আল আমিন সরকার বলেন, নারী গ্রাম পুলিশ শাহনাজ বেগম একজন দুশ্চরিত্রা। সে গনি নামের এক লোকের সাথে আমার কাউন্সিলে অবৈধভাবে মেলামেশা করে। 

এ বিষয়ে তাকে আমি জিজ্ঞেস করলে, শাহনাজ বেগম উল্টো ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বলে যে সে গনিকে বিয়ে করবে আপনার সমস্যা কি। তাই আমি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর করেছি।

 

আল আমিন সরকার চেয়ারম্যান আরও বলেন, আমি আমার পরিষদকে পতিতালয় বানাতে চাই না বলেই তার সঠিক বিচার করেছি। আমি কোন অন্যায় কাজ করিনি।

সম্পর্কিত বিষয়: