নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

মঙ্গলবার,

১৮ জানুয়ারি ২০২২

আইভীর মামলায় আসামী হয়েই মারা গেলেন ছাত্রলীগ নেতা সুজন

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:২১:২৩, ৯ জানুয়ারি ২০২২

আইভীর মামলায় আসামী হয়েই মারা গেলেন ছাত্রলীগ নেতা সুজন

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী ডা.সেলিনা হায়াৎ আইভীকে হত্যাচেষ্টার মামলার আসামী হয়েই মারা গেলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন।

রোববার (৯ জানুয়ারি) বেলা পৌনে ২টার দিকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এরআগে ৬ জানুয়ারি তাকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এবং অবস্থার অবনতি হলে শনিবার (৮ জানুয়ারি) তাকে আইসিইউতে নেয়া হয় বলে পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে।


বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতে হকার উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে ২০১৮ সালের ১৬ জানুয়ারি নাসিক মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তার সমর্থকদের সঙ্গে হকারসহ ত্রিমুখী সংঘর্ষে ঘটনায় ২২ মাস ১৮ দিন পর আদালতে মামলা করা হয়। নারায়ণগঞ্জ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম ফাহমিদা খাতুনের আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে সদর মডেল থানাকে এজাহার হিসেবে গণ্য করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। সংঘর্ষের ঘটনায় সেলিনা হায়াৎ আইভীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে ২০২০ সালের ৪ ডিসেম্বর বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে আইভীর পক্ষে মামলাটি করেন।


মামলায় আসামী করা হয় যুবলীগ নেতা নিয়াজুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জানে আলম বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন, যুবলীগ কর্মী নাসির উদ্দিন ওরফে টুন্ডা নাসির ও যুবলীগ নেতা চঞ্চল মাহমুদকে। এছাড়াও আরও ৯০০ থেকে ১০০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।


পরে ২০২১ সালের ১৩ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আনিসুর রহমানের আদালতে নিয়াজুল ছাড়া বাকী ৮ আসামি আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে ওইদিন সকালে উচ্চ আদালত থেকে নেয়া জামিননামা জেলা ও দায়রা জজ আনিসুর রহমানের আদালতে আসামিরা স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে জামিননামা দাখিল করেন।