নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

২১ জুলাই ২০২৪

অবৈধ দোকানপাটে ফের দখল নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ ঘাট

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:০৫:৪০, ১ জুন ২০২১

অবৈধ দোকানপাটে ফের দখল নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ ঘাট

শহরের অন্যতম প্রাচীন গুদারাঘাট নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ গুদারাঘাট। শীতলক্ষ্যা নদী তীরবর্তী হওয়ায় গুদারা ঘাটটিকে কেন্দ্র করে মানুষের চলাফেরার জন্য সৌন্দর্য বর্ধন করার লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে নির্মাণ করা হয়েছে ওয়াকওয়ে। 


এছাড়াও ঘাটটি রাতের বেলা আরও সৌন্দর্য বর্ধন করতে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের পক্ষে থেকে এলএডি লাইট স্থাপনা করা হয়। যাতে করে সাধারন মানুষ এখানে এসে তাদের পরিবার- পরিজন নিয়ে নদীর সৌন্দর্য ও মনোরম পরিবেশ উভোগ করতে পারে। 


নবীগঞ্জ ঘাটের পাশে অস্থায়ী হকার ও অবৈধ দোকানপাটে ভরে গেছে। অবৈধ দোকানপাটে ফের দখল হয়ে আছে নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ ঘাট। একাধিক বার জেলা  প্রশাসন ও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে থেকে অবৈধ দোকানপাট ও হকার উচ্ছেদ করা হলো আবারও গড়ে উঠে এসকল দোকনপাট গুলো।


সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ ঘাটে অবৈধ ভাবে রাস্তার দুইপাশে দখল করে বসেছে প্রায় অর্ধ শতাধিক দোকানপাট। নবীগঞ্জ ঘাট দিয়ে ফেরি সার্ভিস চালু হওয়ার পর যাত্রী ও গাড়ি চলাচল বেড়েছে দ্বিগুণ। 


প্রতিদিন লক্ষাধিক মানুষ এইঘাট দিয়ে পারাপার হয়। কিন্তু রাস্তার বেশির ভাগ অংশ দখল করে আছে অবৈধ দোকানপাট। 
এর কারনে রাস্তায় হাঁটার জায়গা অনেকটাই কমে গেছে। ঘাটটিকে কেন্দ্র করে মানুষের চলাফেরার জন্য সৌন্দর্য বর্ধন করার লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে নির্মাণ করা হয়েছে ওয়াকওয়ে তা দখল করে রেখে অবৈধ ভাবে গড়ে ওঠা দোকানপাট গুলো। 


অবৈধ ভাবে দোকান বসিয়ে রমজমাট ব্যবসা করছে মৌসুমী ফল ব্যবসায়ীরা। তাদের ব্যবহৃত সকল ময়লা আর্বজনা ফেলে রেখেছে ঘাটের পাশে ও ওয়াকওয়ে। এতে করে ঘাটের সৌন্দর্য বিলিমের পথে। 


ফেলা রাখা ময়লা আর্বজনার গন্ধে ঘাটের পরিবেশ দূষিত হচ্ছে। এছাড়াও রাস্তার দুই পাশে অবৈধ ভাবে বসে আছে চাÑপানের দোকান, পোশাকের দোকান, খাবারের দোকানসহ নানা ধরনের দোকানের দৌরাত্ম্যের কারণে রাস্তায় চলাচল করতে বিপাকে পড়ছে সাধারন মানুষ।


সূত্রমতে, নবীগঞ্জ- হাজীগঞ্জ ঘাটে অবৈধ প্রায় অর্ধ শতাধিক দোকানপাট থেকে প্রতি মাসে ৪ থেকে ৫ হাজার করে টাকা নেয় স্থানীয় একটি চক্র। মূলোত এদের ক্ষমতার বলেই এসকল দোকানিরা কাউকে তোয়াক্কা না করেই অবৈধ ভাবে রাস্তায় দখল করে যেখানে সেখানে দোকান বসিয়ে ব্যবসা করছেন তারা।


জেলা প্রশাসন ও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে থেকে একাধিক বার অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ করা হলোও অদৃশ্য শক্তি বলে তারা রাতারাতি আবারও দখল করে বসে পড়ে।


নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বাজার মনিটারিং কর্মকর্তা জহিরুল আলম বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে থেকে নতুন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। অতিদ্রুত এবিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।