নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

০৩ জুলাই ২০২২

বন্দরে ঢাকেশ্বরী স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:২২:৩৮, ২১ জুন ২০২২

বন্দরে ঢাকেশ্বরী স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন

বন্দরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ঢাকেশ্বরী (১নং ঢাকেশ্বরী) মিলস স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচন আগামী ২২ জুলাই হতে যাচ্ছে। সে উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার থেকে বিদ্যালয়ে মনোনয়নপত্র বিতরণ ও জমাদান কার্যক্রম শুরু হয়, যা আগামীকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত (২১ জুন থেকে ২৩ জুন) সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে।

 

২৬ জুন সকাল ১০টার সময় প্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষে মনোনয়ন বাছাই ২৯ জুন বিকাল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহার করা যাবে। এর আগে গত ৯ জুন এই নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করা হয়। বন্দর উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. আবু জাফর এই নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করবেন বলে নিশ্চিত করেছেন প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ।

 

বর্তমানে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ রশীদ।


বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৩৫ প্রতিষ্ঠিত হওয়া এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১৯৪৬ সালে স্থায়ী স্বীকৃতি পায়। এই বিদ্যালয় থেকে দেশের বরেণ্য অনেক লোকজন শিক্ষা লাভ করেছেন। প্রতিবার এই প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনকে খুব গুরুত্বের সাথে নেন স্থানীয় অভিভাবকগণ।

 

নির্বাচনে অংশ গ্রহণের জন্য উৎসুক হয়ে থাকা অভিভাবকদের মাঝে এ নির্বাচন নিয়ে তাই কৌতুহলের শেষ নেই। গতকাল মনোননয়নপত্র বিতরণের প্রথম দিন বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মো. আনোয়ার হোসেনের সাথে নির্বাচনের বিষয়ে কথা বললে তিনি জানান, আজ থেকে তিনদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র বিতরণ ও জমা নেওয়া হবে।

 

২৬ জুন সকাল ১১টায় মনোনয়ন বাছাই এবং ২৯ জুন বিকেল ৪ টা পর্যন্ত মনোনয়ন পত্যাহার করা যাবে। আগামী ২২ জুলাই সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ কার্যক্রম চলবে। তিনি আরও জানান, ২০২২ সালের গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তে চুড়ান্ত ভোটার তালিকা অনুযায়ী অভিভাবকদের মধ্যে মাধ্যমিক শাখায় মোট ভোটার ৯১২ জন ও কলেজ শাখায় মোট ভোটার ১০১জন।

 

এছাড়াও মাধ্যমিক শাখায় ২০ জন শিক্ষক, কলেজ শাখায় ১ জন্য শিক্ষক এবং দাতা সদস্য হিসেবে ১জন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করবেন।


বিতরণ শুরুর প্রথমদিন মনোনয়ণপত্র ক্রয় করেন অভিভাবক খায়রুজ্জামান রায়হান। নির্বাচনের বিষয়ে তিনি বলেন, আমি এই স্কুলেই লেখাপড়া করেছি। এর আগে আমি এই নির্বাচনে কখনও অংশগ্রহণ করিনি।

 

এই প্রতিষ্ঠানের সার্বিক উন্নয়নে অবদান রাখার লক্ষ্যে সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের কল্যাণে কাজ করার উদ্দেশ্যে এবং এখান থেকে সর্বপ্রকার ইভটিজিং দুর করার লক্ষ্যে কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে নতুন মুখ হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি। আশাকরি অভিভাবকগণ আমাকে নির্বাচিত করবেন।