নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

২৬ মে ২০২৪

বন্দরে চাঁদা না পেয়ে ঠিকাদারকে কুপিয়ে জখম 

নারায়ণগঞ্জ টাইমস

প্রকাশিত:২২:১৮, ২৮ মার্চ ২০২৩

বন্দরে চাঁদা না পেয়ে ঠিকাদারকে কুপিয়ে জখম 

বন্দরে নবীগঞ্জ উত্তর নোয়াদ্দা এলাকায় নির্মানাধীন আকিজ গ্রুপে ঠিকাদারি কাজের নিয়ন্ত্রন ও আধিপত্য বিস্তারসহ দাবিকৃত ১ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে রুবেল (৩৫) নামে এক ঠিকাদারকে বেদম ভাবে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় চাঁদাবাজ সুজনসহ তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিরুদ্ধে। 


স্থানীয়রা জখম অবস্থায় ঠিকাদার রুবেলকে উদ্ধার বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দ্রুত ঢামেক হাসপাতালে প্রেরণ করে। 


এ ঘটনায় আহত ঠিকাদার রুবেল প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করে মঙ্গলবার (২৮ র্মাচ) দুপুরে স্থানীয় চাঁদাবাজ সুজন ও তার সন্ত্রাসী দুই ভাই পিয়ার হোসেন ও নাজির হোসেনসহ বেশ কিছু চাঁদাবাজের নাম উল্লেখ্য করে বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়েরন করেন। 


এর আগে গত সোমবার (২৭ র্মাচ) রাত ১০টায় বন্দর থানার আমিরাবাদ বটতলাস্থ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ওই সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটে। আহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বন্দর থানার ২৪ নং ওয়ার্ডের বক্তারকান্দী এলাকার আব্দুল মতিন মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া দীর্ঘ দিন ধরে নবীগঞ্জ উত্তর নোয়াদ্দা এলাকাস্থ নির্মানাধীন আকিজ গ্রুপে ঠিকাদারি কাজ করে আসছে। 


ঠিকাদার রুবেল আকিজ গ্রুপে ঠিকাদারি কাজ করার সুবাদের একই থানার উত্তর নোয়াদ্দা এলাকার আনোয়ার হোসেন মিয়ার ছেলে সুজন দীর্ঘ দিন ধরে ঠিকাদার রুবেলের নিকট ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। ঠিকাদার রুবেল চাঁদা দিতে অপরগতা প্রকাশ করলে উল্লেখিত চাঁদাবাজ ক্ষিপ্ত হয়ে ঠিকাদারকে বড় রকমের ক্ষতি সাধসাধন করার হুমকি প্রদান করে।  
এর জের ধরে গত সোমবার (২৭ র্মাচ) রাত ১০টায় ঠিকাদার রুবেল কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে আমিরাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আসলে ওই সময় উৎপেতে থাকা চাঁদাবাজ সুজন ও তার সন্ত্রাসী দুই ভাই পিয়ার হোসেন ও নাজির হোসেনসহ অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জন সন্ত্রাসী ধারালো দেশিয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। 


ওই সময় হামলাকারিরা ঠিকাদার রুবেলকে হত্যার উদ্দেশ্যে দেশিয় অস্ত্র দিকে এলাপাথারী ভাবে কুপিয়ে রাস্তায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। 


এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ আবু বকর সিদ্দিক জানান, রুবেল নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।   
 

সম্পর্কিত বিষয়: