নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

শনিবার,

২৬ নভেম্বর ২০২২

ফতুল্লা বিসিকের মূর্তিমান আতঙ্ক কে এই সম্রাট

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:১৮:১০, ১৮ নভেম্বর ২০২২

ফতুল্লা বিসিকের মূর্তিমান আতঙ্ক কে এই সম্রাট

ফতুল্লার শিল্পনগরী বলে খ্যাত বিসিক শিল্পাঞ্চলে মূর্তিমান এক আতংকের নাম সম্রাট। স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে সম্রাট শাসনগাও, বিসিক এলাকায় গড়ে তুলেছে অপরাধের সম্রাজ্য। আর এই অপরাধ সম্রাজ্যের মুকুটহীন সম্রাট হয়ে উঠেছেন সম্রাট। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাই, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজী, অস্ত্র সহ অর্ধ ডজনেরও বেশী মামলা রয়েছে ফতুল্লা মডেল থানায়। পুলিশের উপর ও হামলার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

 

তথ্য মতে, ফতুল্লা মডেল থানার শাসনগাও বিসিক এলাকার আব্দুল হাইয়ের পুত্র সম্রাট। নাম সম্রাট প্রতিটি ক্ষেত্রেই সে তার মতোই কর্ম করে চলে। 

 

ঝুট সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী,ছিনতাই সহ নানা অপরাধের জন্ম দিয়ে গোটা বিসিক শিল্পাঞ্চলে সম্রাট মূর্তিমান আতংকে পরিনত হয়েছে। তার রয়েছ বিশাল এক সন্ত্রাসী বাহিনী।মাদক কারাবারে বিসিক এলাকায় তার রয়েছে একক প্রভাব। বলা যায় গত কয়েক দিন পূর্বেও মুদি দোকানের মতো প্রকাশ্য বিসিক দুই নাম্বার গেইটে একটি নির্দিস্ট স্থানে বসে ইয়াবা,ফেনসিডিল ও গাঁজা বেচাকেনা হতো। যা স্থানীয় মহলে সম্রাটের মাদক স্পট নামে ব্যাপক পরিচিত লাভ করেছিলো। একই সাথে বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্ণধার ও উধ্বতন কর্মকর্তাদের জন্য হোম ডেলিভারি ও প্রচলিত। গোটা বিসিক জুড়ে মাদক বাজারে রয়েছে সম্রাটের একক নিয়ন্ত্রণ। নির্ভরযোগ্য একটি সূত্রের দাবী গত কয়েকদিন পূর্বে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের একটি দল বিসিকস্থ সম্রাটের মাদক স্পটে হানা দেয়। সে সময় পুলিশের দুই সদস্য কে লাঞ্চিত করে পালিয়ে যায় সম্রাট। সর্বশেষ গত দুদিন পূ্র্বে ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ সড়কে ডাকাতিকালো পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিন সদস্যকে ধারালো অস্ত্র সহ গ্রেফতার করলেও পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় দূর্ধর্ষ অপরাধী সম্রাট।

 

স্থানীয় একাধিক তথ্য মতে, স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার ছত্রছায়ায় সম্রাট দূর্ধর্ষ অপরাধি হয়ে উঠেছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিশেষ করে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনার পর থেকে সম্রাটের সাথে ঐ নেতার সম্পর্কের ফাটল ধরে। যার ফলে সম্রাট  নিজ ফেসবুক আইডিতে ঐ নেতার ছবি দিয়ে বেঈমান বলে আখ্যায়িত করে। 

 

 ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ শেখ রিজাউল হক দিপু জানায়, সম্রাটের বেশ কয়েক সহযোগিকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। সম্রাট কে ও গ্রেফতার করার জন্য পুলিশ কাজ করছে বলে তিনি জানান।

 

 

সম্পর্কিত বিষয়: