নারায়ণগঞ্জ টাইমস | Narayanganj Times

রোববার,

০৩ জুলাই ২০২২

সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোরগ্যাং সাকিব বাহিনী বেপরোয়া

নারায়ণগঞ্জ টাইমস:

প্রকাশিত:২১:৩৩, ১৭ মে ২০২২

সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোরগ্যাং সাকিব বাহিনী বেপরোয়া

বাম থেকে সাকিব, আল আমিন, মামুন. ফারুক ও ফাহিম

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জের ৫নং ওয়ার্ডে সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠে কিশোরগ্যাং সন্ত্রাসীরা। তাদের উৎপাতে অতিষ্ঠ এলাকার সাধারণ মানুষ। এই কিশোরগ্যাং সন্ত্রাসীদের কারণে নিরাপদে সোনা মিয়া স্টেডিয়াম সংলগ্ন শীতলক্ষ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ে ওয়ার্ক ওয়েতে হাটতে পারে না কোন নারী-পুরুষ। মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা তাদের নিত্যদিনের রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেউ প্রতিবাদ করলে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হতে হয়। কিন্তু এই সন্ত্রাসীদের দিন দিন উৎপাত বেড়েই চলছে।

 


সবশেষ শনিবার (১৪ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ৫নং ওয়ার্ডের শ্বশান ঘাট সংলগ্ন নদীর পাড় এলাকায় আরাফাত হোসেন রিয়াদ (১৭) ও তার বন্ধু আরাফাতকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর  রক্তাক্ত জখম করেছে কিশোর গ্যাং সন্ত্রাসী সাকিব বাহিনী। তাদের হাতে রামদা, ছুরি, লোহার রড ও লাঠিসোঠা ছিল। সাকিব বাহিনীর সদস্যরা হচ্ছে,  সাকিব (২৫), ফাহিম (২৫), আল আমিন (২৪), মামুন (২৪) ও ফারুক (২৫)। এরমধ্যে সাকিব সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার মাজারের পেছনে সুরুজ মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া আমির হোসেন মনিরের ছেলে, ফাহিম সাইলো গেইট তাজুল ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া জয়নালের ছেলে, আল আমিন সাইলো গেট মুন্সিপাড়া রমিজ সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া হান্নানের ছেলে, মামুন সাইলোগেট ৪র্থতলা আলিয়া মাদ্রাসার পেছনের বাড়ির টুলির ছেলে এবং ফারুক সাইলোগেট তাজুল ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

 


এদিকে আহত আরাফাত হোসেন রিয়াদের বাবা মো: সেলিম বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। সেখানে উল্লেখিত ৫জনের নাম ছাড়া অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামী করেছেন।

 


আহত আরাফাত হোসেন রিয়াদের বাবা অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, গত শনিবার আরাফাত হোসেন রিয়াদ তার বন্ধুদের সাথে নাসিক ৫নং ওয়ার্ডের শ্বশানঘাট নদীর পাড় এলাকায় ঘুরতে যায়। ঘুরতে যাওয়ার পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে রিয়াদের বন্ধুদের সাথে পূর্ব বিরোধের জের ধরে রিয়াদের উপর অতর্কিত হামলা করে সাকিব ও তার সহযোগিরা। এবং এলাপাথারী রিয়াদকে কুপিয়ে আহত করে। রিয়াদের ডাক চিৎকার শুনে তার অপর বন্ধু আরাফাত হোসেন এগিয়ে আসলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে। 

 


রিফাতের বাবা সেলিম মিয়া জানান, অভিযুক্ত মো.শাকিব আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো চাকু দিয়ে বুকের বাম পাশে কুপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। একপর্যায়ে আশে পাশের মানুষ এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা আমার ছেলেকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। স্থানীয়দের সহযোগীতায় আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়। হামলাকারীরা আহত রিয়াদ তার বন্ধুর কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন সেট ও গলার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

 

এদিকে এলাকাবাসী কিশোরগ্যাং বাহিনীর এই সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে। না হলে দিনি দিন এরা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠবে। এতে রক্তাক্ত আরও কোন মায়ের সন্তান।

 


এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান পিপিএম জানান, আহত যুবকের পিতা থানায় এসে অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
 

সম্পর্কিত বিষয়: